ক্রিসমাসের ম্যাড ফ্রাইডে- প্রতি সেকেন্ডে ২.১ মিলিয়ন স্পেন্ট, প্যানিক স্যাটারডে (ভিডিও)
সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদ, শনিবার, ডিসেম্বর ২০, ২০১৪


ক্রিসমাসের ম্যাড ফ্রাইডে কেমন হলো- প্রতি মিনিটে ২.১ মিলিয়ন খরচ !


সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদ- লন্ডন থেকে


গতকাল ছিলো ১৯ ডিসেম্বর ২০১৪, শুক্রবার। ক্রিসমাসের আগের শেষ শুক্রবার। যাকে ব্রিটিশ এবং ক্রিস্টানরা ক্রিসমাসের আগের এই শুক্রবার দিনটিকে ম্যাড ফ্রাইডে হিসেবে সর্বাধিক পরিচিত। এদিন ১৩ মিলিয়ন ব্রিটিশ শপারেরা প্রতি মিনিটে ২.১ মিলিয়ন পাউন্ড খরচ করেছেন, এভারেজ হিসেবে প্রতিজনে ৯২.৩১ পাউন্ড খরচ করেছেন। আর এই হিসেব আজকে প্রকাশ করেছেন খোদ সেন্টার ফর রিটেইল রিসার্চ (সিআরআর)।

কেবল ম্যানচেস্টার সিটিতেই এই দিন ১৫০ হাজার থেকে ২০০ হাজার ব্রিটিশ বা খ্রিস্টান জনগণ রাস্তায় ছিলেন, দোকানে দোকানে শেষ মুহুর্তের শপিং করার জন্য।

আজকে শনিবার- এই রিপোর্ট যখন তৈরি করছি তখন শনিবার দিন অতিবাহিত হয়ে ঘড়ির কাটায় রাত ১০টা। এদিনকে বলা হয়ে থাকে প্যানিক স্যাটারডে- ক্রিসমাসের একেবারের শেষ মুহুর্তের শপিং এর জন্য তাড়াহুড়ো- একটা কিছু চাই ই চাই। আজ শপাররা সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ১.২মিলিয়ন মুহুর্তে শপিং করেছেন।

আর অ্যালকোহলের বিক্রি ম্যাড ফ্রাইডেতে ছিলো গত বছর ২০১৩ সালের শুক্রবারের তুলনায় ১১৪ পার্সেন্ট অতিরিক্ত।

নিরাপত্তা ব্যবস্থায় নিয়োজিত সকল বাহিনী ছিলো সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থায়। পুলিশ জনগণের সোশ্যাল লাইফের নিরাপত্তা বিধানে ছিলো সব চাইতে তৎপর এবং হাই এলার্টে।

এইতো গেলো ক্রিসমাসের শপার আর শপিং ও অর্থনীতির খবর। কিন্তু এদিন অর্থাৎ ম্যাড ফ্রাইডেতে রাতের বেলা কেমন ছিলো ? পুলিশ, নিরাপত্তা বাহিনী আর বিভিন্ন এজেন্সির ফটো স্ন্যাপ আর সংবাদপত্রের বরাত দিয়ে খ্যাতনামা এজেন্সিগুলো সারা ব্রিটেনের বিভিন্ন শহর ও সিটির যে চিত্র সরবরাহ করেছে, তার মর্ম হলো-

সারা রাত ছিলো ব্রিটেনের সর্বত্র উপচে পড়া ভিড়। ক্রিসমাস পার্টি বার, রেস্টুরেন্ট, টেকওয়ে, বাসা বাড়ির লন, আর সেন্টারে এবং ডিসকো পার্টিতে ক্লাব আর নাইট ক্লাব ছিলো উপচে পড়া ভিড়। অধিকাংশ বার ও রেস্টুরেন্ট এবং নাইট ক্লাব ছিলো রাত অবধি খোলা। ব্রিটেনের বিভিন্ন শহর ও সিটি এদিন সারা রাত জেগেছিলো। রাস্তায় রাস্তায় মানুষের প্রচণ্ড ভীড় পরিলক্ষিত হয়েছিলো। টিউব ষ্টেশনগুলো অতিরিক্ত সার্ভিস এবং সেবা প্রদান করেছে অনবরত, ছিলো প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থাও। লিডস, বার্মিংহাম, ম্যানচেস্টার, নিউক্যাসল, কার্ডিফ, ওয়েলস, লন্ডন সহ সর্বত্র নারী পুরুষের উদ্যাম খোলা মেলা নৃত্য আর রাস্তার ধারে পড়ে থাকা, স্কার্ট খুলে নাচা নাচি, বারগুলোতে জায়গা না পেয়ে রাস্তায় জড়ো হয়ে সারা রাত পার্টি আর মদের নেশায় নেচে গেয়ে উৎসবে মেতেছিলো ব্রিটেন। পুলিশকে রাখা হয়েছিলো হাই এলার্টে।হাসপাতালে ছিলো অতিরিক্ত সার্ভিসের পূর্ণ ব্যবস্থাও। অনেককেই বিভিন্ন হাসপাতালে অতিরিক্ত মদ্যপ অবস্থায় সেবা দিয়েছেন হাসপাতালের এক্সিডেন্ট এন্ড ইমার্জেন্সি বিভাগ। পুলিশ এবং এম্বুলেন্স সার্ভিস সারাক্ষণ মাতাল নরনারীদের সহযোগিতায় ছিলো ব্যস্ত। লিডসে কেবলমাত্র একজন নারীকে ভোর চারটায় এন্টিসোশ্যাল বিহেভিয়ারের কারণে পুলিশ এরেস্ট করেছে। বার্মিংহামে এসল্টের দরুন আটক করলেও পরে পুলিশ ছেড়ে দিয়েছে।

Mad Friday Night Big Hits Street in Cardiff-




আজ সারা রাত শেষ মুহুর্তের ক্রিসমাস পার্টি আর রেস্টুরেন্ট বার, নাইট ক্লাব খোলা থাকবে। পাবলিক ট্রান্সপোর্ট বিশেষ ব্যবস্থায় সারা রাত চলবে। আজকের রাত ভালোয় ভালোয় পার হলেই ব্রিটেন হয়তো ম্যাড ক্রিসমাস ফ্রাইডের পর প্যানিক স্যাটারডে পালন শেষে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরবে। ততোক্ষণে হয়তো ক্রিসমাসের হলিডে সুরু হয়ে যাবে। নতুন বছরের হলিডে এক সাথে কোন কোন প্রতিষ্ঠান ও সংস্থায় আরম্ভ হলেও মিলিয়ন বিলিয়ন লোক আবারো শপিং মল, রেস্টুরেন্ট, বার আর নাইট ক্লাবে ফিরবে নিউ ইয়ারের সেলিব্রেশনে।

Salim932@googlemail.com
20th December 2014, London.



ম্যাড ফ্রাইডে নাইট-ক্রিসমাস ২০১৪
ম্যাড ফ্রাইডে নাইট-ক্রিসমাস ২০১৪
ম্যাড ফ্রাইডে নাইট-ক্রিসমাস ২০১৪
ম্যাড ফ্রাইডে নাইট-ক্রিসমাস ২০১৪