এশিয়া এনার্জির মূল কোম্পানি জিসিএম এর এজিএম পন্ড করে দেয়ার পর
কল্লোল মুস্তাফা , মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ২৫, ২০১২



আর বেশি দেরী নাই, যেদিন, এশিয়া এনার্জির শেয়ার পেপার হিসেবেও কেউ কিনবে না। গত ২০ ডিসেম্বর জাতীয় কমিটি’র লন্ডন শখার উদ্যোগে এশিয়া এনার্জির মূল কোম্পানি জিসিএম এর এজিএম পন্ড করে দেয়ার পর এমনিতেই কমতে থাকা শেয়ারের দাম আরো কমেছে। রক্ত আর কয়লা খেকো এশিয়া এনার্জির কোথাও ছাড় নাই, ফুলবাড়িতে কোন ভাবেই কিছু করতে পারছে না, এমনকি লন্ডনে যে শেয়ার হোল্ডার দের নিয়ে শান্তিতে বার্ষিক সভা(এজিএম) করবে তারও উপায় নেই! তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা কমিটি সেই খানেও তারে দৌড়ের উপরে রাখছে।

গত ২০ ডিসেম্বর জাতীয় কমিটি’র লন্ডন শাখার উদ্যোগে লণ্ডন মাইনিং নেটওয়ার্ক, এ্যাজিটআর্টওয়ার্কস, ক্লাইমেইট জাস্টিস কালেক্টিভ, ওয়ার্ল্ড ডিভালাপমেন্ট মুভমেণ্ট সহ বিভিন্ন সংগঠনের কর্মীরা এশিয়া এনার্জির মূল সংগঠন জিসিএম রিসোর্স এর এজিএম পন্ড করে দিয়েছে। একদিকে লন্ডনের এজিএম অনুষ্ঠান স্থলের বাইরে জাতীয় কমিটি লন্ডন শাখার নেতৃত্বে বিক্ষোভ সমাবেশ হয়েছে, এজিএম এর প্রবেশ পথে কয়লা ঢেলে দেয়া হয়েছে, এ্যাজিটআর্টওয়ার্কস এর কর্মীর পথ নাটকের মাধ্যমে ফুলবাড়ি কয়লা প্রকল্পের সম্ভাব্য ধ্বংস যজ্ঞের প্রতীকি উপস্থাপনা করেছেন, পুলিশের হাতে দুই জন গ্রেফতার হয়েছেন, অন্যদিকে এজিএম সভার ভেতরে বিক্ষোভকারীরা জিসিএম এর কর্তাদের প্রশ্ন বানে জর্জরিত করেছেন, এমনকি এক পর্যায়ে সান্তা ক্লস সেজে একজন জিসিএম এর চেয়ারম্যান জেরাল্ড হলডেনের হাতে এক ব্যাগ কয়লা তুলে দেয় এবং মিটিং টেবিলের উপর কয়লা ঢেলে দিয়ে সভা পুরোপুরি পন্ড করে দেয়।

ফলাফল: এশিয়া এনার্জির শেয়ার হোল্ডারদের আরো দমে যাওয়া যার স্বাক্ষ্য দিবে লন্ডনের শেয়ার বাজার: এমনিতেই কমতে থাকা এশিয়া এনার্জির শেয়ারের দাম ৮.২% কমেছে; গত বছর যেখানে শেয়ার প্রতি দাম ছিল ৬১ পেন্স, এই বছর সেই শেয়ার দাম পড়তে পড়তে হয়েছে ২৮ পেন্স। এই কারণেই বলছি, সেই দিন আর বেশি দেরী নাই, যেদিন, এশিয়া এনার্জির শেয়ার টয়লেট পেপার হিসেবেও কেউ কিনবে না।