সফল মাঃ বিশ্বের অগ্রসরতা প্রমাণ
লন্ডন-এইদেশ সংগ্রহ , রবিবার, মে ১২, ২০১৩


বিশ্ব এগিয়ে নিচ্ছেন যেসব সফল মায়েরা:

শিশুদের মুটিয়ে যাওয়া রোধে: মিশেল ওবামা

যুক্তরাষ্ট্রের মোট জনসংখ্যার দুই-তৃতীয়াংশ এখন মুটিয়ে যাওয়ার সমস্যায় জর্জরিত। গত তিন দশকে মার্কিন শিশুদের মধ্যে এ স্বাস্থ্য সমস্যা তিনগুণ বেড়েছে। খাদ্যাভ্যাসে নাটকীয় পরিবর্তন না আনলে মুটিয়ে যাওয়াটা মহামারি আকারে দেখা দেওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

আর তাই শিশুদের মুটিয়ে যাওয়ার বিরুদ্ধে রীতিমতো যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন মার্কিন ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা। স্কুল শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যসম্মত খাবার গ্রহণ নিশ্চিত করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সেরা সব রন্ধনশিল্পীকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানিয়েছেন।

শিশুদের মুটিয়ে যাওয়া রোধ করতে প্রাথমিকভাবে পাঁচ শতাধিক রন্ধনশিল্পী বাছাই করা হয়েছে। এই রন্ধনশিল্পীরা স্কুল-কলেজে যাবেন। স্বেচ্ছাসেবার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পুষ্টিকর এবং সুষম খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত করবেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামার দুটি মেয়ে শাশা ও মালিয়া।

সফল পররাষ্ট্রমন্ত্রী: হিলারি

মার্কিন ইতিহাসে অন্যতম সফল পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে হিলারি ক্লিনটনের নাম ইতিহাসে লেখা থাকবে। হিলারির মেধা, নিয়মানুবর্তিতা, পরিশ্রম করার মানসিকতার কারণেই তাকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে বেছে নেন ওবামা।

ওবামার প্রথম মেয়াদের মন্ত্রিসভার সদস্যদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় মন্ত্রীও হিলারি। এই সাফল্যই তাকে পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থিতার লড়াইয়ে অন্যতম প্র্রতিদ্বন্দ্বীর অবস্থানে নিয়ে গেছে।

মিয়ানমারকে গণতন্ত্রের পথে নেওয়া, চীনের ভিন্নমতাবলম্বী নেতা চেন গুয়াংজেংকে মুক্ত করা, এশিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্ব বাড়ানো এবং ইরানের ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন আদায় হিলারির অন্যতম সাফল্য। পর্যবেক্ষকদের মতে, হিলারির আমলে ইউরোপের সঙ্গেও মার্কিন সম্পর্ক জোরদার হয়েছে।

তিনি সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনের স্ত্রী। এই দম্পতির একমাত্র কন্যা সন্তান চেলসি ক্লিনটন।

লরেন্স পাওয়েল জবস

মানুষে মানুষে সংযুক্তি আর যোগাযোগ হয় সর্বজনীন আর সহজসাধ্য করতেই কাজ করেছেন অ্যাপলের প্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবস।জবসের মৃত্যুর পর তার যোগ্য স্ত্রী লরেন্স পাওয়েল জবস অ্যাপল বিশ্বের শীর্ষ স্থানীয় কোম্পানীটির হাল ধরেছেন। অ্যাপল থেকে আমরা জনপ্রিয় প্রযুক্তিপণ্য আইপ্যাক, আইপড, আইফোন কিংবা আইপ্যাড পেয়েছি। বিশ্বের শীর্ষ ধনীদের তালিকায়ও প্রথমদিকেই রয়েছেন লরেন্স পাওয়েল জবস।

অ্যাপলের বিশ্বব্যাপী রয়েছে কয়েক লাখ কর্মী। অ্যাপল তার মিউজিক স্টোরের মাধ্যমে বিশ্বের হাজার হাজার তরুন-তরুণী এখন নিজেদের দিন বদলের রাস্তা খুঁজে নিচ্ছেন।

মেলিন্ডা গেটস

মেলিন্ডা ফ্রেঞ্চ গেটস মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে জন্মগ্রহণকারী মানবপ্রেমী ও নারী ব্যবসায়ী ব্যক্তিত্ব। তার অন্যতম পরিচয় হচ্ছে বিশ্বের অন্যতম সেরা ধনী ব্যক্তি ও মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা, চেয়ারম্যান, সাবেক প্রধান সফটওয়্যার নির্মাতা এবং সাবেক সিইও বিল গেটসের সহধর্মীনি তিনি। মাইক্রোসফটে কর্মরত অবস্থায় তাদের মধ্যে পরিচিতি ঘটে। মাইক্রোসফট বব, মাইক্রোসফট এনকার্টা এবং এক্সপিডিয়া প্রকল্পে কাজ করেছেন মেলিন্ডা। মেলিন্ডা-বিল গেটস্ দম্পতির জেনিফার ক্যাথরিন গেটস, ররি জন গেটস এবং ফোবি অ্যাদেলে গেটস নামীয় তিন সন্তান রয়েছে।

মেলিন্ডা গেটস পরিচালিত ‘বিল ও মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন’ প্রতিটি মানুষের জীবনই সমান গুরুত্বপূর্ণ এই বিশ্বাস নিয়ে সকল মানুষকে স্বাস্থ্যসম্মত, উত্পাদনমুখী জীবন যাপনে সাহায্য করার লক্ষ্যে কাজ করে আসছে। উন্নয়নশীল দেশগুলোতে, এটি রোগ প্রতিরোধক টীকা এবং জীবনরক্ষাকারী উপাদানের মাধ্যমে মানুষের জীবন রক্ষায় অবদান রাখছে।

এলিজাবেথ ওয়ারেন

হাভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরঅহংকার আইন শাস্ত্রের সাবেক অধ্যাপক এলিজাবেথ ওয়ারেন। ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্য থেকে সিনেটর নির্বাচিত হয়েছেন। কিন্তু তার আগেই রাজনৈতিক তারকা খ্যাতি নিজস্ব ঝুলিতে ভরতে সক্ষম হয়েছেন। অনেকেই বলেছেন, ডেমক্র্যাট দলে এলিজাবেথ উদীয়মান তারকা। তিনি আমেরিকার খেটে খাওয়া মানুষের পক্ষে অবস্থান নিয়ে তাদের সাথে কাজ করতে চান। এরই মধ্যে কেউ কেউ বলছেন এলিজাবেথ, হিলারি রডহাম ক্লিনটনকেও ছাড়িয়ে যাবেন।